আগামীকাল ‘ক্যাম্পাস’ বাসে বাড়ী যাবে রাবি শিক্ষার্থীরা

উমর ফারুক
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৬:১২ PM, ১২ জুলাই ২০২১

সশরীরে পরীক্ষা দিতে আসা শিক্ষার্থীদের বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব বাসে করে বিভাগীয় শহর পর্যন্ত পৌঁছানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। আগামীকাল মঙ্গলবার (১৩ জুলাই) থেকেই বাস সার্ভিস চালু করা হচ্ছে এমনটাই জানিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবহন দপ্তরের প্রশাসক মকছিদুল হক।

তিনি বলেন, প্রথমদিন নওগাঁ, বগুড়া, নাটোর এবং চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিক্ষার্থীদের বাড়িতে পৌঁছে দেওয়ার সিদ্ধান্ত চুড়ান্ত হয়েছে। ১৩ তারিখে যদি গাড়িগুলো স্বাভাবিকভাবে ফিরে আসে তাহলে ১৪ জুলাই গাইবান্ধা এবং রংপুরের উদ্দেশ্যে এবং ১৫ জুলাই দিনাজপুর এবং সিরাজগঞ্জের উদ্দেশ্যে গাড়ি যাবে। এরপরে ১৬ জুলাই ঢাকা ও ময়মনসিংহে এবং ১৭ জুলাই কুষ্টিয়া, ফরিদপুর ও বরিশালে গাড়ি যাবে। তারপর ১৮ জুলাই খুলনায় গাড়ি পাঠানো হবে। সবশেষে সিলেট, কুমিল্লা এবং চট্টগ্রামে গাড়ি দেওয়া হবে। এক্ষেত্রে সিলেটের গাড়ি ব্রাহ্মনবাড়িয়া পর্যন্ত যাবে।‘প্রতিদিন সকাল সাতটায় বাসগুলো বিশ্ববিদ্যালয় থেকে গন্তব্যস্থলের উদ্দেশ্যে রওনা দিবে।

সকল শিক্ষার্থীদের সাথে স্ব স্ব পরিচয় রাখতে হবে জানিয়ে তিনি বলেন, মূল আইডি কার্ড প্রদর্শন করা ব্যতিত কোনও শিক্ষার্থীকে বাসে তোলা হবে না। বাসে উঠার আগে প্রত্যেক শিক্ষার্থীকে আইডি কার্ড সঙ্গে রাখতে হবে এবং একটি এটেনডেন্স শীট থাকবে সেখানে শিক্ষার্থীদের স্বাক্ষর করতে হবে। একইভাবে বাস থেকে নামার সময়, শিক্ষার্থীরা যে স্থানে নামবে সে স্থানের নাম উল্লেখপূর্বক আরেকটি স্বাক্ষর করতে হবে। পাশাপাশি নিরাপত্তার স্বার্থে ছাত্রীদের নামার স্থানে এসে তাদের নিয়ে যাওয়ার জন্য অবিভাবকদের সহায়তা কামনা করছি।’

তিনি আরো বলেন, ‘যেসকল রুটে পূর্বে গাড়ি দেওয়া হবে পরবর্তীতে সেসকল রুট দিয়ে যাতায়াত করলেও নির্ধারিত স্টোপেজ ছাড়া পূর্বের কোনও স্টপজে গাড়ি থামবে না। প্রত্যেক গাড়িতে নির্ধারিত স্টোপেজের নাম দেওয়া থাকবে। প্রতিদিন ৯ থেকে ১০টি বাস চলবে এবং প্রত্যেক বাসে ৫০ জন করে শিক্ষার্থী তাদের গন্তব্যস্থলে যেতে পারবেন।
উল্লেখ্য, গত ৩ জুন আবাসিক হলসমূহ বন্ধ রাখার শর্তে সশরীরে স্থগিত হওয়া পরীক্ষা নেয়া সিদ্ধান্ত নিয়েছিলো রাবি প্রশাসন। স্থগিত হওয়া পরীক্ষা সমূহ গত ২০ জুনের পর থেকেই শুরু হচ্ছে সেই সাথে ২০ জুনের পর ২০১৯ সালের স্থগিত পরীক্ষা সমূহ, আগামী ৪ জুলাই এর পর ২০২০ সালের পরীক্ষা সমূহ অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিলো।

আপনার মতামত লিখুন :