আমার কিছু ছিলোনা,শুধু পড়ালেখা করেই এ অবস্থানে – অর্থমন্ত্রী

নাজমুল সবুজ,কুবি
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৫:৫২ PM, ১৬ মার্চ ২০২১

আপনারা সবকিছু বাদ দিয়ে শুধু পড়াশুনা করুন। আমার কিছু ছিল না। শুধুমাত্র পড়ালেখা করার কারণে আমি আজ এ অবস্থানে এসেছি। তোমাদের অবকাঠামোগত উন্নয়ন সমস্যার সমাধান হয়েছে। এবার তোমাদেরকে গভীর জ্ঞান অর্জনে মনোনিবেশ করতে হবে। আজ মঙ্গলবার (১৬ মার্চ) কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিকতর উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালী যুক্ত হয়ে এসব কথা বলেন অর্থমন্ত্রী আ.হ.ম মোস্তফা কামাল বলেন। দীর্ঘ প্রতিক্ষার পর কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিকতর উন্নয়ন প্রকল্পের নির্মাণ কাজের উদ্বোধন হয়েছে। মঙ্গলবার বিশ্ববিদ্যালয়ের ভার্চুয়াল ক্লাসরুমে এক সভায় বিশ্ববিদ্যালয়টির ১৬৫৫ কোটি ৫০ লাখ টাকার মেগা প্রকল্পের কাজ উদ্বোধন করেন অর্থমন্ত্রী আ.হ.ম মুস্তফা কামাল। সভা শেষে মূল ফটকের কাজ উদ্বোধন করেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. এমরান কবির চৌধুরী।
উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার অধ্যাপক ড.মো. আবু তাহেরের সঞ্চালনায় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. এমরান কবির চৌধুরীর সভাপতিত্বে উপস্থিত বিশেষ অতিথি হিসেবে ভার্চুয়ালী উপস্থিত ছিলেন শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী, বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ ড. মো. আসাদুজ্জামান, সেনাবাহিনীর প্রকল্প পরিচালক লেফটেন্যান্ট কর্ণেল মোহাম্মদ আলী, বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি ড. মো: শামিমুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক ড. কাজী মোহাম্মদ কামাল উদ্দীনসহ বিভিন্ন অনুষদের ডীন, বিভাগের প্রধানবৃন্দ, কর্মকর্তা ও শাখা ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা।
অনুষ্ঠানে অর্থমন্ত্রী আরো বলেন, বঙ্গবন্ধু আমাদের ভূখ- স্বাধীন করে দিয়েছিলেন। কিন্তু স্বাধীনতার পর আমাদের দেশকে চূড়ান্ত সফলতার প্রান্তে নিয়ে যাবার সুযোগ পাননি। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাত ধরে আজ আমরা বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের দেশ গড়ছি। দেশের যেদিকে তাকাবেন সেদিকেই উন্নয়ন দেখবেন। এসময় অর্থমন্ত্রী আরো বলেন, কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় একটি আধুনিক বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হবে। আমার যদি সুযোগ হত তাহলে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে এসে আরেকবার শিক্ষা গ্রহণ করতে পারলে আমি নিজেকে পরিপূর্ণ মনে করতাম। কিন্তু আমার আর সময় নেই। আপনারা এ শিক্ষাঙ্গনকে জ্ঞানগর্ভ দিয়ে আলোকিত করবেন এটা আমি কামনা করি।
বিশেষ অতিথির বক্তব্যে শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী বলেন, কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় একটি ফ্লাগশিপ শিক্ষালয়। আধুনিকতার সাথে তাল মিলিয়ে শিক্ষার্থীরা যেন প্রফেশনাল শিক্ষাকে গুরুত্ব দিতে শেখে বর্তমান শিক্ষা কাঠামোতে সরকার সে বিষয়ে গুরুত্ব প্রদান করছে। আমি আশা করছি যে সনাতন মনোভাব থেকে বেরিয়ে এসে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় প্রফেশনাল শিক্ষাকে জড়িয়ে নেবে। কর্মসংস্থানে যোগ্য করে তোলার জন্য কতৃপক্ষ নতুন নতুন উদ্যোগ গ্রহণ করবে। প্রয়োজন হলে চলমান বিভাগ এবং কোর্স সমূহের মডিউল পরিবর্তন করবে। কারন আমরা যুগোপযোগী দক্ষ জনশক্তি তৈরি করতে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ।
এসময় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. এমরান কবির চৌধুরী বলেন, যারা মেগা প্রকল্পের কাজ করবেন তাদেরকে সহযোগীতা করতে হবে। তাহলে দ্রুত কাজ শেষ হবে। আমি সবার সহযোগীতা পেয়েছি বলেই আজ কাজ শুরু করতে পেরেছি। আমি দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি আমাদের দেশের যত বিশ্ববিদ্যালয় আছে সবচেয়ে সুন্দর বিশ্ববিদ্যালয় হবে আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়।
উল্লেখ্য, গত ১১ মার্চ বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ২৪ ইঞ্জিনিয়ার কনস্ট্রাকশন বিগ্রেডের সাথে অধিকতর উন্নয়ন প্রকল্পের অবকাঠামোগত নির্মাণ কাজের জন্য সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর হয়। এরআগে, ২০১৮ সালের অক্টোবরে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় অধিকতর উন্নয়নের জন্য ১৬৫৫ কোটি ৫০ লক্ষ টাকার মেগা প্রকল্প অনুমোদন দেওয়া হয় । প্রকল্পটির মধ্যে রয়েছে, ২০০ একর নতুন ভূমি অধিগ্রহণ, ভূমি উন্নয়ন (১০০ একর), চারটি দশ তলা একাডেমিক ভবন নির্মাণ, একটি ছয় তলা প্রশাসনিক ভবন নির্মাণ, ছাত্রদের জন্য দুইটি দশ তলা আবাসিক হল, ছাত্রীদের জন্য দুইটি দশতলা আবাসিক হল, উপাচার্যের বাসভবন, শিক্ষকদের জন্য একটি দশ তলা আবাসিক ভবন নির্মাণ , একটি দশ তলা ডরমেটরি ভবন নির্মাণ, ছাত্র শিক্ষক কেন্দ্র, তিন তলা কেন্দ্রীয় মিলনায়তন, মেডিকেল সেন্টার নির্মাণ, অভ্যন্তরীণ রাস্তা, লেক খননসহ বেশ কয়েকটি কার্যক্রম। প্রকল্পটি ২০২৩ সালের জুনে শেষ হওয়ার কথা রয়েছে।

 

আপনার মতামত লিখুন :