ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৯শে নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১৪ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
  1. অর্থনীতি
  2. আন্তর্জাতিক
  3. ক্যাম্পাস
  4. খেলা
  5. জবস
  6. জাতীয়
  7. তথ্যপ্রযুক্তি
  8. বিনোদন
  9. রাজনীতি
  10. লাইফস্টাইল
  11. শিক্ষা
  12. সারাদেশ
  13. সাহিত্য
  14. স্বাস্থ্য

ইবিতে মধ্যরাতে হলের লাইট বন্ধ করে মারধরের অভিযোগ

প্রতিবেদক
bdcampus
সেপ্টেম্বর ২, ২০২২ ২:৪১ পূর্বাহ্ণ

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে (ইবি) মধ্যরাতে এক শিক্ষার্থী মারধরের শিকার হন বলে অভিযোগ উঠেছে। ল’ এন্ড ল্যান্ড ম্যানেজমেন্টের ১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের হুজ্জাতুল্লাহ ভূইয়া তার বন্ধুদের সাথে নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ডেভেলপমেন্ট স্টাডিজ বিভাগের ১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের জহরুল ইসলাম রিংকুকে মারধর করেন।

বৃহস্পতিবার (১ সেপ্টেম্বর) রাত ২ টার দিকে জিয়াউর রহমান হলের সামনে একা পেয়ে প্রায় ১৫ জন এসে লাঠি-স্টাম্প দিয়ে রিংকুকে মারধর করেন বলে জানা যায়।

এ বিষয়ে ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী রিংকু বলেন, ৩ দিন আগে হুজ্জাতুল্লাহ ক্যাম্পাসে লুঙি পড়ে আসায় আমি তাকে বহিরাগত মনে করে নাম আর ডিপার্টমেন্টের জিজ্ঞেস করি। পরে তাকে আর কিছু না বলে চলে যেতে তারা আমার উপর ক্ষুব্ধ হয়ে আমার সাথে খারাপ ব্যবহার করলে কথা কাটাকাটি হয়। পরে আজ মধ্য রাতে আমি নাস্তা খেতে শেখ পাড়া বাজারে যাই। বাজার থেকে আসার পথে জিয়া হলের সামনে আমাকে একা পেয়ে ১২-১৫ জন ছেলে হলের লাইট বন্ধ করে লাঠি-স্টাম্প দিয়ে আমাকে মারধর করে তারা হলে পালিয়ে যায়। তারা সকলে জিয়া হলের রায়হানের অনুসারী।

হুজ্জাতুল্লাহ ভূইয়া বলেন, কিছুদিন আগে রাতে তিনি আমার পরিচয় জানতে চাইলে আমি পরিচয় দেই। পরে আর কিছু জানতে চান কিনা জিজ্ঞেস করলে তিনি আমার উপর চওড়া হয়ে আমার গায়ে হাত তুলেন। পরে বন্ধুদের মধ্যে বিষয়টি জানাজানি হলে গতকাল রাতে তার সাথে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে বলে জানতে পারি। তবে আমি ঘটনা স্থলে ছিলাম না।

এ বিষয়ে জিয়াউর রহমান হলের প্রভোস্ট অধ্যাপক ড. মনজুরুল হক বলেন, হলের লাইট বন্ধ কিংবা জ্বালিয়ে যেভাবেই হোক একজন শিক্ষার্থীকে অন্য শিক্ষার্থীর মারধরের কোনো অধিকার নেই। বিষয়টি আমি তোমার মাধ্যমে জানতে পারলাম, হলের নিরাপত্তার জন্য আমি আনসার এবং সংশ্লিষ্টদের নির্দেশনা দেব। এছাড়া প্রক্টরকেও আমি বিষয়টি অবহিত করব।

এ ব্যাপারে বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টর জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, আমি বিষয়টি সম্পর্কে জানতাম না। শিক্ষার্থীর কাছ থেকে আমরা এখনো কোনো অভিযোগ পাইনি।

Print Friendly, PDF & Email

সর্বশেষ - ক্যাম্পাস