চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের তিন ছাত্র নেতাকে শোকজের প্রতিবাদে বিক্ষোভ সমাবেশ

ডেস্ক রিপোর্ট
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ১২:৩৯ AM, ১২ সেপ্টেম্বর ২০২১

আজ ১১ই সেপ্টেম্বর সকাল ১১টায় চট্টগ্রাম নগরের আন্দরকিল্লা মোড়ে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের তিন ছাত্র নেতাকে শো-কজ করার প্রতিবাদে ও বিশ্ববিদ্যালয়ে গণতান্ত্রিক পরিবেশ নিশ্চিত করার দাবিতে বিক্ষোভ সমাবেশ ও মিছিল অনুষ্ঠিত হয়।

সমাবেশের সঞ্চালনা করেন ছাত্র ইউনিয়ন চট্টগ্রাম জেলার যুগ্ম আহবায়ক শাহরিয়ার রাফি। সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট চট্টগ্রাম নগর শাখার সভাপতি দীপা মজুমদার, গণতান্ত্রিক ছাত্র কাউন্সিল কেন্দ্রীয় অর্থ সম্পাদক এ্যানি চৌধুরী, ছাত্র ফেডারেশন চট্টগ্রাম নগর যুগ্ম আহবায়ক সাইফুর রুদ্র, ছাত্র ইউনিয়ন চট্টগ্রাম জেলার আহ্বায়ক জুয়েল মজুমদার, বিপ্লবী ছাত্র মৈত্রী চট্টগ্রাম নগর সংগঠক আবিদ ইসলাম, ছাত্র ফেডারেশন নগর শাখার সদস্য শ্রীধাম কুমার শীল ও জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী মিজান মাহিন।

সমাবেশে বক্তারা বলেন বিশ্ববিদ্যালয়ে যে কোন যৌক্তিক দাবিতে মানববন্ধন, স্মারকলিপি পেশ কোন অপরাধমূলক কাজ নয়। এটা ছাত্রদের গনতান্ত্রিক অধিকার। কিন্তু আমরা দেখলাম চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে পরীক্ষার্থীদের জন্যে পরিবহন ব্যবস্থা নিশ্চিতের দাবি করায় ৩ছাত্র নেতার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ এনে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন তাদের শো-কজ করে। আমরা মনে করি এটি প্রশাসনের একটি নির্লজ্জ অগণতান্ত্রিকতার বহিঃপ্রকাশ এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের গনতান্ত্রিক পরিবেশের জন্য হুমকি।

বক্তারা আরো বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় মুক্তবুদ্ধি চর্চার সূতিকাগার। সুতরাং এখানে নানা মত, নানা চিন্তার মানুষ থাকবে এবং প্রত্যেকে তাদের চিন্তার প্রচার করার অধিকার রাখে। ফলে আন্দোলনে অংশগ্রহণকারী শিক্ষার্থীকে বাধ্য করে অভিযোগ গ্রহণ প্রক্রিয়া এবং প্ররোচনার যে অভিযোগ তা ভিত্তিহীন। অভিযোগ গ্রহণ থেকে শো-কজ প্রদান পর্যন্ত পুরো প্রক্রিয়াটি বিশ্ববিদ্যালয়ের মৌলিক চরিত্রকে প্রশ্নবিদ্ধ করে।

সমাবেশ থেকে বক্তারা, ভবিষ্যতে যদি আর কোন আন্দোলনে এরূপ হয়রানি করা হয় এবং মিথ্যা অভিযোগে অভিযুক্ত ছাত্রনেতাদের বিরুদ্ধে পরবর্তী কোন শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়, তাহলে ছাত্রসমাজকে নিয়ে এর বিরুদ্ধে জোরদার আন্দোলন গড়ে তোলা হবে বলে হুশিয়ারি জানান৷ এছাড়াও প্রশাসনকে এই মিথ্যা ও চক্রান্তমূলক শো-কজ প্রত্যাহারপূর্বক ছাত্রদের কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করা এবং বিশ্ববিদ্যালয়ে গণতান্ত্রিক পরিবেশ নিশ্চিত করার দাবি জানান।

আপনার মতামত লিখুন :