জবি ছাত্রীর শ্লীলতাহানির মামলায় এক মাসেও ধরা পড়েনি কেউ

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক, জবি
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৫:৩১ PM, ৩০ জুলাই ২০২১

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) নারী শিক্ষার্থীকে শ্লীলতাহানির মামলার এক মাস অতিবাহিত হয়ে গেলেও ধরা পড়েনি কোনো অপরাধী।

ভুক্তভোগী ছাত্রী বিডি ক্যাম্পাসকে বলেন, এখনও থানা থেকে আমাকে কোনো আপডেট জানানো হয়নি।

এদিকে সংশ্লিষ্টদের সাথে কথা বলে জানা যায়, কয়েকজন সন্দেহভাজনকে আটক করলেও ভুক্তভোগী তাদের শনাক্ত করতে পারেননি বলে পরবর্তীতে তাদের ছেড়ে দেওয়া হয়।

সূত্রাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুহাম্মাদ মামুনুর রহমান মামলার অগ্রগতি সম্পর্কে বিডি ক্যাম্পাস প্রতিবেদককে ফোনালাপে বলেন, মামলার এখনো কোনো অগ্রগতি নেই, আমরা বেশ কয়েকজন সন্দেহভাজন ভিক্টিমকে দেখিয়েছি তবে ভিক্টিম শনাক্ত করতে পারেনি। তবে তদন্ত চলমান আছে।

জবির প্রক্টর ড.মোস্তফা কামাল বাংলাদেশ জার্নালকে বলেন, পুলিশ কাজ চালাচ্ছে, কয়জনকে সন্দেহভাজন হিসেবে আটকও করেছিলো কিন্তু ভুক্তভোগী তাদের শতভাগ শনাক্ত করতে পারেনি। আর বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টরিয়াল টিম নিয়মিত থানার সাথে যোগাযোগ রাখছে।

উল্লেখ্য, গত ২৭ জুন পুরান ঢাকার কলতাবাজার এলাকায় আনুমানিক রাত সাড়ে ৯টার দিকে জবির ভুক্তভোগী ওই নারী শিক্ষার্থী প্রয়োজনীয় বাজার নিয়ে বাসায় ফিরছিলেন। এ সময় কবি নজরুল কলেজের পাশে উইনস্টন গলিতে প্রবেশ করলে নির্জন রাস্তায় একা পেয়ে যৌন নিপীড়নের ঘটনা ঘটায় এক যুবক। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী ছাত্রী প্রথমে সূত্রাপুর থানায় সাধারণ ডায়েরি ও পরবর্তীতে মামলা করেন।

আপনার মতামত লিখুন :