‘ডাক্তার হতে এসে ছেলে এখন আইসিইউতে’

নিজস্ব প্রতিবেদক
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  09:42 PM, 31 October 2021

‘আকিব খুব মেধাবী ছাত্র, আমার স্বপ্ন ছেলেকে ডাক্তার বানাব। কিন্তু ডাক্তার হতে এসে ছেলে এখন আইসিইউতে। তার সুস্থতার জন্য সবার কাছে দোয়া চাই।’ কথা গুলো বলছিলেন চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজে ছাত্রলীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষে আহত হওয়া মাহাদি আকিবের বাবা গোলাম ফারুক মজুমদার।

এরআগে, রোববার দুপুরে আকিবকে আইসিইউতে দেখতে আসেন চমেক অধ্যক্ষ ও হাসপাতালের পরিচালক। আকিবের চিকিৎসায় বিশেষজ্ঞদের নিয়ে সাত সদস্যের মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এস এম হুমায়ন কবির।

তিনি বলেন, আকিবের অবস্থা গতকালের চেয়ে কিছুটা উন্নতি হয়েছে। তার চিকিৎসার জন্য সার্জারি, নিউরো সার্জারি, মেডিসিনসহ বিভিন্ন বিভাগের প্রধানদের নিয়ে সাত সদস্যের একটি মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়েছে। তারাই চিকিৎসা দেবেন। তিনি আরও বলেন, লাইফ সাপোর্টে রেখেই আকিবকে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। তার অবস্থা উন্নতির দিকে। আরও উন্নতি হলে লাইফ সাপোর্ট খুলে নেওয়া হবে।

এদিকে, ছেলের আহত হওয়া খবরে কুমিল্লা থেকে চট্টগ্রামে ছুটে আসেন বাবা গোলাম ফারুক মজুমদার। তিনি কুমিল্লা জেলা স্কুলের শিক্ষক।

আকিবের বাড়ি কুমিল্লায়। সে কুমিল্লা জেলা স্কুল থেকে গোল্ডেন জিপিএ ফাইভ পেয়ে এসএসসি পাশ করেছে । আর নটরডেম কলেজ থেকে এইচএসসিতেও গোল্ডেন জিপিএ ফাইভ পেয়েছে। এরপর ভর্তি পরীক্ষা দিয়ে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজে ভর্তি হয়।

তার বাবা গোলাম ফারুক মজুমদার বলেন, আল্লাহর মেহেরবানি ছাড়া আর কিছু বলার নেই। আমি দেশবাসীর কাছে আকিবের জন্য দোয়া চাই। যেন আমার ছেলে আকিব দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠে স্বাভাবিকভাবে পড়ালেখা চালিয়ে যেতে পারে। যা ঘটে গেছে, তা তো আর ফিরে আসবে না। যারা এ ধরনের ঘটনা ঘটিয়েছে তাদের শাস্তি চাই।

এর আগে গত শুক্রবার রাতে মেডিকেল কলেজ হোস্টেলে দুই পক্ষের কথা-কাটাকাটি হয়েছিল। এর জের ধরে গতকাল শনিবার সকাল ৯টার দিকে দুই পক্ষের সংঘর্ষ হয়। এতে মাহফুজুল হক, নাইমুল ইসলাম ও আকিব নামে তিনজন আহত হন।

এ ঘটনায় পাঁচলাইশ থানায় ১৬ জনের নাম উল্লেখ করে আরও ৬ থেকে ৭ অজ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তিকে আসামি করে মামলা করেছেন শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেলের অনুসারী ছাত্রলীগ নেতা তৌফিকুর রহমান। এর মধ্যে এজাহারভুক্ত দুজনকে রাতেই হাসপাতালের গেট থেকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

সংঘর্ষের জেরে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করে শনিবার বিকেল ৫টার মধ্যে হোস্টেল ত্যাগের নির্দেশ দেয় কর্তৃপক্ষ। পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে গতকাল থেকে চমেক হোস্টেল ও হাসপাতাল প্রাঙ্গণে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে বলে জানান পাঁচলাইশ থানার ওসি জাহেদুল কবির।

আপনার মতামত লিখুন :