তিন সপ্তাহ পেরিয়ে খুবি শিক্ষার্থীদের আন্দোলন

মুহিব্বুল্লাহ, খুবি
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৩:২৮ PM, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২১

খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে (খুবি) শিক্ষার্থীদের ৫ দফা দাবিতে সংহতি জানানোয় একজন শিক্ষককে বরখাস্ত ও দুই জনকে অপসারণ এর প্রতিবাদে আজ ২২ তম দিনের মতো প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে শিক্ষার্থীরা। আজ রবিবার বেলা ১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের সামনে প্রায় ১৫ জন শিক্ষার্থী এই প্রতিবাদ সমাবেশে অংশ নেন।
এসময়ে শিক্ষার্থীরা বলেন, আমাদের সম্মানিত ৩ জন শিক্ষককে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের দানবীয় প্রশাসন অন্যায়ভাবে বহিষ্কার করেছে এবং আজ আমরা ২২তম দিনের মতো প্রতিবাদ সমাবেশ করছি। এবং হাইকোর্টের আদেশ কে অমান্য করেও ডিসিপ্লিন থেকে তাদেরকে বিভিন্নভাবে হয়রানি করা হচ্ছে। প্রশাসনের গুটিকয়েক ব্যক্তি বর্গের উপর আইয়ুব খান এবং ভুট্টোর প্রেতাত্মারা ভর করেছে, তারা চায় না খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে গণতন্ত্র চালু হোক। কারণ শিক্ষার্থীরা যদি কথা বল তাহলে তাদের অন্যায় অনিয়ম দুর্নীতি নিয়োগ বাণিজ্যের খবর উঠে আসবে। তারা যদি তারা যদি হাইকোর্টের আদেশ অমান্য করে এই অন্যায় সিদ্ধান্তের উপর অটল থাকে তাহলে খুলনার মানুষ সহ সারা বাংলাদেশের মানুষ তাদের বিচার করবে।

এর আগে ৯ ফেব্রুয়ারি বরখাস্ত-অপসারণের সিদ্ধান্তের আদেশ স্থগিত করে ওই তিন শিক্ষককে চাকরিতে বহাল রাখার নির্দেশ দিয়েছে হাইকোর্ট। পাশাপাশি শিক্ষকদের বিরুদ্ধে নেওয়া সিদ্ধান্ত কেন অবৈধ হবে না তা চার সপ্তাহের মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের কাছে জানতে চেয়েছে আদালত।

উল্লেখ্য, গত ২৩ তারিখে বিশ্ববিদ্যালয় সিন্ডিকেটের ২১২ তম সভায় শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে উস্কানি, অসদাচরণ, প্রশাসনবিরােধী কার্যক্রমসহ নানা অভিযােগে বাংলা ডিসিপ্লিনের সহকারী অধ্যাপক মাে . আবুল ফজলকে বরখাস্ত এবং একই ডিসিপ্লিনের প্রভাষক শাকিলা আলম ও ইতিহাস সভ্যতা ডিসিপ্লিনের প্রভাষক হৈমন্তী শুক্লা কাবেরীকে চাকরি থেকে অপসারণের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

আপনার মতামত লিখুন :