নিখিল বঙ্গ বিয়ে খাওয়া কমিটি’র সভাপতির ফেসবুক আইডি হ্যাক!

নিজস্ব প্রতিবেদক
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৯:০৫ PM, ২৪ এপ্রিল ২০২১

 

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য এম আব্দুস সোবাহানের বিদায় উপলক্ষ্যে আগামী ৪মে অনলাইনে (ভার্চুয়াল মাধ্যেম) ‘কি করে সইবো
তব বিদায় এখন’ শিরোনামে একটি আলোচনা অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করার কথা ছিলো নিখিল বঙ্গ বিয়ে খাওয়া কমিটি’র(নিব্বিখাক) কেন্দ্রীয় সভাপতি ইমামুল বাকের এ্যাপোলোর।

কিন্তু তার ব্যক্তিগত ফেসবুক আইডি থেকে আজ বিকালে একটি স্ট্যাটাসের মাধ্যমে নিজেকে অনুষ্ঠান থেকে প্রত্যাহার করে নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন।

হঠাৎ অনুষ্ঠান থেকে নিজেকে প্রত্যাহারের বিষয়ে নিব্বিখাক সভাপতি এ্যাপোলোর সাথে মোবাইল নম্বরে যোগাযোগ করলে নম্বরটি বন্ধ পাওয়া যায়।এমনকি আমরা তার ম্যাসেন্জার,স্ন্যাপচ্যাট,সিগনাল,ওয়্যাটসএ্অ্যাপ ও টেলিগ্রামেও যোগাযোগ করলেও তার কোন উত্তর পাওয়া যায়নি।রাবি উপাচার্য এম আব্দুস সোবাহানের বিদায় উপলক্ষ্যে আলোচনা সভার ব্যানার।

এ্যাপলোর নিজের ফেসবুক আইডি থেকে দেওয়া ওই স্ট্যাটাসটি পাঠকদের জন্য হুবহু তুলে ধরা হলো-
আমি স্বেচ্ছায় ‘কি করে সইব তব বিদায় এখন’ অনুষ্ঠান থেকে এবং নিখিল বঙ্গ বিয়ে খাওয়া কমিটি নিব্বিখাক থেকে নিজেকে প্রত্যাহার করে নিচ্ছি। কারণ আমি মনে করছি প্রাণ প্রিয় ভিসি স্যারের আদর্শের পরিপন্থী লোকজনের অনুপ্রবেশ ঘটেছে। এই আয়োজন তার মুল চরিত্র থেকে সরে আসবার উপক্রম। এছাড়াও এহেন মহতী আয়োজনের সঙ্গ দেয়ায় বিভিন্ন মহল থেকে হুমকি ধামকি পেয়ে কিছুটা ভীতও হয়ে পরেছি। তবুও ভিসি স্যারের এ বিদায় আমি নিভৃতে অন্তরে পালন করে যাবো। সর্বোপরি আয়োজনের সফলতা কামনা করে আমি সজ্ঞানে এবং স্বেচ্ছায় প্রত্যাহার করে নিলাম নিজেকে। এই আয়োজন সংক্রান্ত একটি ঘটনায় জনাব মর্তুজা হাসান সুহাস এর সাথে আমার ব্যাক্তিগত কথোপকথন এর কিছু স্ক্রীনশট ফেইসবুকে পোস্ট করেন তিনি। সেটি আমার ব্যাক্তিগত নিরাপত্তার প্রশ্নে হতবাক করে তোলে। সেই স্ক্রীনশটে আদতে কি আছে বা ওইটির মাধ্যমে উনি কি বোঝাতে চেয়েছেন অপরিষ্কার হওয়ায় আমি তাকে সেগুলো রিমুভ করে দিতে অনুরোধ জানাই।

অনুষ্ঠান থেকে প্রত্যাহারের বিষয়ে নিখিল বঙ্গ বিয়ে খাওয়া কমিটির (নিব্বিখাক) সাধারণ সম্পাদক মোল্লা মোহাম্মদ সাঈদ বলেন,
“আপনারা কোনভাবেই ভেংগে পড়বেন না। আমরা আশংকা করছি জনাব ইমামুল বাকের এ্যাপোলোর ফেসবুক আইডি হ্যাক করে মাননীয় উপাচার্য মহোদয় বিরোধী শিক্ষক শিবিরের সাইবার অপরাধীদের (পেইড এজেন্ট) অপচেষ্টা। আমরা খুব দ্রুতই এ বিষয়ে প্রক্টর স্যারের সহযোগিতা চেয়ে আবেদনও করবো।”
তিনি আরো বলেন,
আপনারা উৎকন্ঠিত,বিচলিত হবেন না।অতি শীঘ্রই সব পরিষ্কার করা হবে।

আপনার মতামত লিখুন :