পহেলা সেপ্টেম্বরে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার দাবিতে ছাত্র ফেডারেশন চট্টগ্রাম নগরের সমাবেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৬:৩৬ PM, ২৭ অগাস্ট ২০২১

পহেলা সেপ্টেম্বরে থেকে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার দাবিতে ছাত্র চট্টগ্রাম নগর ছাত্র ফেডারেশন নগরীর আন্দরকিল্লা মোড়ে সমাবেশ করেছে।
আজ শুক্রবার সকাল ১১ টায় করোনাকালে শিক্ষা বেতন ফি মওকুফ করে ১’লা সেপ্টেম্বর থেকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার দাবিতে এ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।
সংগঠনের সদস্য রিয়াদ রাসেল এর সঞ্চালনায়, যুগ্ম আহ্বায়ক সাইফুর রূদ্র’র সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন ইয়াকিন হায়দার, শংকর চক্রবর্তী, মেহেদী হাসান প্রমূখ।

বক্তারা বলেন, শিক্ষার্থীদের শিক্ষাজীবন ফেরত দিতে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়া জরুরি। এই মুহূর্তে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে না দিলে এদেশের ছাত্র সমাজ শিক্ষা বিমুখ হয়ে পড়েছে। শুধু বর্তমান শিক্ষার্থীরাই নয় ক্ষতিগ্রস্ত হবে প্রজন্ম থেকে প্রজন্ম।

বক্তারা আরো বলেন, শিক্ষাখাতে আজ ফ্যাসিবাদী নিপীড়ন চলছে। বিগত সময়ে অযৌক্তিক অটোপাশ দিয়ে দেশের বিপুল সংখ্যক শিক্ষার্থীদের শিক্ষা জীবন কে প্রশ্নবিদ্ধ করা হয়েছে। শুধু তাই নয় বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নামেমাত্র অনলাইন শিক্ষা চালু রেখে বানিজ্য বৈ আর কিছুই ঘটেনি। অটোপাশ – অনলাইন শিক্ষা এ সমস্ত সর্বনাশী সিদ্ধান্তের মহড়া এখুনি বন্ধ করা উচিত।

এছাড়া বক্তারা সম্প্রতি এসএসসি এইচএসসি শিক্ষার্থীদের উপর করোনাকালীন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধের সময়ের বেতন ফি চাপিয়ে দিয়ে শিক্ষার্থীদের ঝরে পরার সম্ভাবনা বাড়ানো হয়েছে। এছাড়াও জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে বিভিন্ন পর্যায়ে ফি বর্ধিত করা হয়েছে। বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ১৫% করারোপ করা হয়েছে। বক্তারা বলেন, শিক্ষার বানিজ্যিকীরণ ও সংকোচন বাস্তবায়ন করতেই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখা ও শিক্ষা বিরোধী সিদ্ধান্ত নেয়া হচ্ছে।

সংগঠনের যুগ্ম আহ্বায়ক সাইফুর রূদ্র বলেন, এ সমস্ত সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে শিক্ষার্থীদের আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে, নিজেদের শিক্ষা জীবনে প্রাণ ফেরাতে হবে। নতুবা বাংলাদেশের শিক্ষাব্যবস্থা আর শিক্ষাব্যবস্থা রইবেনা। একদিকে শিক্ষা বিমুখ প্রজন্ম তৈরী হবে, অন্যদিকে শিক্ষাখাত হবে এদেশের সবচে বড় বাণিজ্যখাত।

সমাবেশ শেষে একটি ঝটিকা মিছিল নগরীর চেরাগি মোড়ে এসে শেষ হয়।

আপনার মতামত লিখুন :