ঢাকা, রবিবার, ২৭শে নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১২ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
  1. অর্থনীতি
  2. আন্তর্জাতিক
  3. ক্যাম্পাস
  4. খেলা
  5. জবস
  6. জাতীয়
  7. তথ্যপ্রযুক্তি
  8. বিনোদন
  9. রাজনীতি
  10. লাইফস্টাইল
  11. শিক্ষা
  12. সারাদেশ
  13. সাহিত্য
  14. স্বাস্থ্য

বেপরোয়া ট্রাকের ধাক্কায় আহত ইবি শিক্ষার্থী

প্রতিবেদক
bdcampus
অক্টোবর ১৪, ২০২২ ১১:৩৯ অপরাহ্ণ

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) প্রধান ফটকের সামনে বেপরোয়া ট্রাকের ধাক্কায় বেসরকারি হয়েছে তাওহিদ তালুকদার নামে এক শিক্ষার্থী। তাওহিদ ২০-২১ শিক্ষাবর্ষের বাংলা বিভাগের শিক্ষার্থী।

আহত শিক্ষার্থী সূত্রে জানা যায়, তাওহিদ সন্ধ্যায় চা খেতে মেইন গেটের এক চায়ের দোকানে চা খেতে যায়। চা খেয়ে ফিরার সময় বেপরোয়া গতিতে এক ট্রাক তাকে আঘাত করে। তার এক হাতে আঘাত লাগলে তাকে প্রাথমিক চিকিৎসার জন্য বিশ্ববিদ্যালয় মেডিক্যালে পাঠানো হয়।

এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে মেইন গেট সংলগ্ন কুষ্টিয়া-খুলনা মহাসড়ক অবরোধ করে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীরা। এতে ক্যাম্পাসে উত্তপ্ত পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়। দূর্ঘটনার পরই বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা টায়ার জালিয়ে রাস্তা অবরোধ করে বিক্ষোভ করতে থাকে। এসময় তারা নিরাপদ সড়ক, ফুটওভার ব্রীজ, স্পীডব্রেকার নির্মাণের দাবিতে স্লোগান দিতে থাকে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনের মহাসড়কটিতে দীর্ঘদিন যাবৎ একপাশে অর্ধেক স্পিডব্রেকার দিয়ে যানবহন চলাচল করছিল অন্যপাশে কোনো স্পিডব্রেকার ছিলোনা। এ নিয়ে শিক্ষার্থীরা বারবার অভিযোগ জানালেও কোনো কার্যকরী পদক্ষেপ নিতে দেখা যায়নি।

আহত শিক্ষার্থী তাওহিদ তালুকদার বলেন, আল্লাহর রহমতে এখন সুস্থ আছি। মেডিক্যাল থেকে রিলিজ দিয়েছে। হাতে আঘাত লাগায় হাতে ব্যাথা আছে। প্রশাসনের শিক্ষার্থীদের প্রতি আরও দায়িত্বশীল হওয়া প্রয়োজন। প্রশাসনের নিকট শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে মেইন গেটের সামনে ফুটওভার ব্রিজ নির্মাণের অনুরোধ জানাচ্ছি।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, মহাসড়কের স্পিড ব্রেকার নির্মাণ আমাদের এখতিয়ারের মধ্যে পড়ে না। আইনগতভাবে সরকারি স্থাপনায় কোন অবকাঠামো নির্মাণের অনুমতি নেই। আমরা সড়ক বিভাগকে এর আগে কয়েকবার অনুরোধ করার পরেও এ বিষয়ে কোনো অগ্রগতি হয় নাই। এ ঘটনার পর আমরা আবার অনুরোধ জানাবো।

এ বিষয়ে ইবি থানার ওসি জানান, আমরা ট্রাকটি আটক করে নিজেদের হেফাজতে রেখেছি। ট্রাক চালক পলাতক আছেন। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন থেকে এখনো মামলা করা হয়নি। তারা মামলা করলে আমরা পরবর্তী ব্যাবস্থা নিব।

বিডিক্যাম্পাস-টিভি/সামি

Print Friendly, PDF & Email

সর্বশেষ - ক্যাম্পাস