ঢাকা, শুক্রবার, ৩রা ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ | ২০শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
  1. অর্থনীতি
  2. আন্তর্জাতিক
  3. ক্যাম্পাস
  4. খেলা
  5. জবস
  6. জাতীয়
  7. তথ্যপ্রযুক্তি
  8. ধর্ম
  9. প্রচ্ছদ
  10. ফিচার
  11. বিনোদন
  12. মতামত
  13. রাজনীতি
  14. লাইফস্টাইল
  15. শিক্ষা

ভিলেজ ডক্টর ফাউন্ডেশন এর শুভ উদ্ভোধন

প্রতিবেদক
বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক, গবি
নভেম্বর ২৬, ২০২২ ৪:৩৪ অপরাহ্ণ

 

মানুষ ও মানবতার জন্য স্লোগানে একটি অলাভজনক প্রতিষ্ঠান হিসেবে ঢাকার অদূরে সাভারে ভিলেজ ডক্টর ফাউন্ডেশন এর উদ্ভোধন করা হয়েছে।

শুক্রবার (২৫ নভেম্বর) সকালে শহরের সেনওয়ালী এলাকায় গণ বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী অধ্যাপক (নৃবিজ্ঞান) এবং ট্রি (ট্রেনিং এডুকেশন ফর এমপায়ারমেন্ট) নামক সামাজিক সংগঠনের প্রতিষ্ঠিতা সদস্য ও প্রধান উপদেষ্টা শহীদ মল্লিক এই ফাউন্ডেশন উদ্ভোধন করেন।

এ সময় প্রধান উপদেষ্টা শহীদ মল্লিক বলেন, এন্টিবায়োটিকের ভূল ব্যবহারে সমাজে নানা রকমের রোগের সৃষ্টি হচ্ছে এ জন্য এন্টিবায়োটিক ব্যবহারে সমাজের সবাইকে সচেতন হওয়ার আহবান জানান।

ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান উজ্জ্বল সাহা বলেন, ভিলেজ ডাক্তার ফান্ডেশনের নামকে আমরা সারা দেশে পরিচিত করতে চাই। সুনির্দিষ্ট প্রশিক্ষনের মাধ্যমে আমরা গ্রামে গ্রামে চিকিৎসা সেবা দিব। এখানে শুধু মাএ স্বাস্থ্যসেবা প্রদান করবে এমনটা নয়। এর পাশাপাশি শিক্ষা, সামাজিক কাজ, অল্প খরচে স্বাস্থ্যসেবা আনাই আমাদের প্রধান লক্ষ্য। এছাড়াও যুব উন্নয়ন, ভেটেরিনারি সাহায্য, শিক্ষা সহায়তা, পুষ্টিকর ও মানসম্মত খাদ্য সরবরাহ করার মতো কাজও ভিলেজ ডক্টর ফাউন্ডেশন করে থাকে।

প্রধান নির্বাহী ও ঔষুধ বিজ্ঞানী পবিত্র কুমার শীল বলেন, “আমরা ভিলেজ ডক্টর ফাউন্ডেশন আশা করি শুধু শহর নয় গ্রামেও স্বাস্থ্য সেবা প্রদানে প্রধান ভূমিকা পালন করবে স্বাস্থ্য ও চিকিৎসার বিভিন্ন শাখার স্নাতক ডিগ্রিধারী ব্যক্তিগণ। এরই ফলশ্রুতিতে আমরা ভিলেজ ডক্টর বলতে বোঝাতে চাই সেই সব স্নাতক ডিগ্রী সম্পূর্ণ চিকিৎসককে যারা গ্রামে সেবা-দান করেন। আপনারা জানেন, বাংলাদেশের বেশির ভাগ মানুষই গ্রামে বাস করেন এবং গ্রামীণ স্বাস্থ্য সেবা এখনও সম্পূর্ণ নয় সেহেতু অতি-স্বল্প মূল্যে উন্নত মানসম্পন্ন ওষুধ নিশ্চিত করা, সঠিক চিকিৎসা ও পরামর্শ প্রদান করা সহ স্বাস্থ্য বিষয়ক সচেতনতা ও স্বাস্থ্য বিষয়ক প্রাথমিক শিক্ষা প্রদান করা ভিলেজ ডক্টর ফাউন্ডেশনের প্রধান লক্ষ্য। আমি যখন লোকাল বাস উঠি। অনেকে এসে বলে স্যার দশটা টাকা দেন। আমার মা অসুস্থ। আবার অনেক মানুষকে প্রতিদিন প্রেসারে ঔষধ খেতে হয়। কিন্তু তারা প্রতিদিন ঔষধ খেতে পারে না। শুধু মাএ ঔষধের উচ্চ মূল্যর কারনে। সেই চিন্তা থেকে আমরা মানুষের কাছে মানসম্মত ওষুধ, সঠিক চিকিৎসকের মাধ্যমে যাতে পৌঁছায় এই লক্ষ্য আমরা কাজ করতেছি। এই মুহূর্তে গ্রামীণ জনপদের মানুষের স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা, শিক্ষা, যুব উন্নয়ন ও ভেটেরিনারি বিষয়ের কাজ গুলো চলমান আছে। ”

সেখানে আরো উপস্থিত ছিলেন আইন বিষয়ক উপদেষ্টা অ্যাডভোকেট অরুপ দাস শ্যাম, হিসাব বিষয়ক উপদেষ্টা ব্যাংকার অসীম কুমার রায়, জেনারেল ম্যানেজার সজল সিংহ, স্বাস্থ্য প্রকল্পের পরিচালক জয় সরকার, ভেটেরিনারি প্রকল্পের পরিচালক তানভীর আহমেদ, গণ সংযোগ কর্মকর্তা গৌরব শীল সহ উক্ত ফাউন্ডেশনের শুভাকাঙ্ক্ষীগন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের শেষে অসহায় মানুষের মধ্যে খাদ্য বিতরণ করা হয়।

Print Friendly, PDF & Email

সর্বশেষ - ক্যাম্পাস

আপনার জন্য নির্বাচিত