রাবিতে নরেন্দ্র মোদিকে লালকার্ড!

উমর ফারুক
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৫:৩২ PM, ২৪ মার্চ ২০২১

স্বাধীনতার সূবর্ণ জয়ন্তী ও শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে বাংলাদেশে আসার কথা রয়েছে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেদ্র মোদির। তবে তার আগমনে বার্তায় দেশ জুড়েই চলছে আলোচনা-সমালোচনা। ঢাকাতেও বাম সংগঠনগুলোও এর তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছে। যার প্রেক্ষিতে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়েও ভারতের প্রধানমন্ত্রীকে লাল কার্ড দেখিয়ে প্রত্যাখান করেছে বাংলাদেশ ছাত্র ফেডারেশন রাবি ও রাজশাহী মগহানগর শাখার নেতাকর্মীরা। আজ ২৪ মার্চ (বুধবার) বেলা ১২ টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ বুদ্ধিজীবী চত্বরে নরেন্দ্র মোদির আগমনকে প্রত্যাখ্যান করে লাল কার্ড প্রদর্শন কর্মসূচী আয়োজন করা হয়।
বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সাধারণ সম্পাদক মহব্বত হোসেন মিলনের সঞ্চালনায় মহানগর শাখার সম্পাদক জিন্নাত আরা সুমুর সভাপতিত্বে বক্তারা বলেন,স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী পালনের অনুষ্ঠানে ভারতের সাম্প্রদায়িক দাঙ্গাবাজ নরেন্দ্র মোদীকে আমন্ত্রণ জানিয়ে অসাম্প্রদায়িক চেতনা নিয়ে মুক্তিযুদ্ধে সকল শহীদদের প্রতি চরম অসম্মান করেছেন বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকার। মুক্তিযুদ্ধকে নিজের দলীয় সম্পত্তিতে পরিণত করার এই ঔদ্ধত্যকে এদেশের ছাত্র-জনতা মেনে নেবেনা।
সভাপতির বক্তব্যে জিন্নাত আরা বলেন,বর্তমানে ছাত্রলীগ হেলমেট লীগ,হাতুড়ি লীগের পরে এখন ছিনতাই লীগে পরিনত হয়েছে।গতকাল ছাত্র ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় কমিটির কুশপুত্তলিকা দাহ কর্মসূচি থেকে মোদীর কুশপুত্তলিকা ছিনতাই করে নিয়ে গেছেন।আমরা ছাত্রলীগের এই আচরণের তীব্র নিন্দা জানাই।
বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ সম্পাদক মহব্বত হোসেন মিলন বলেন,ফ্যাসিস্ট নরেন্দ্র মোদিকে আমরা প্রত্যাখ্যান করছি এবং একই সাথে মোদীকে রক্ষার জন্য আজ ছাত্রলীগ যেই ভূমিকা পালন করছে তার জন্য আগামীতে তাদেরকেও এনএসএফের মতোই ইতিহাসের আস্তাকুঁড়ে নিক্ষেপ করা হবে। এই সমাবেশ থেকে আমরা ছাত্র জোটের বিক্ষোভে ছাত্রলীগের হামলার নিন্দা জানাই।
সমাবেশে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সদস্য আজিজুল মানিক,মহানগর শাখার সদস্য ভ.ই.ক্যাস্ট্রো সাগর,সংহতি জ্ঞাপন করেন সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্ট চট্টগ্রাম মহানগর শাখার সদস্য শুভ প্রমুখ।

 

আপনার মতামত লিখুন :