ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৯শে নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১৪ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
  1. অর্থনীতি
  2. আন্তর্জাতিক
  3. ক্যাম্পাস
  4. খেলা
  5. জবস
  6. জাতীয়
  7. তথ্যপ্রযুক্তি
  8. বিনোদন
  9. রাজনীতি
  10. লাইফস্টাইল
  11. শিক্ষা
  12. সারাদেশ
  13. সাহিত্য
  14. স্বাস্থ্য

রাবিতে ফেল করা শিক্ষার্থীদের ভর্তি বাতিলের দাবিতে বিক্ষোভ

প্রতিবেদক
বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক, রাবি
নভেম্বর ১৩, ২০২২ ৯:৪৯ অপরাহ্ণ

বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘পোষ্য কোটা’ বাতিলসহ তিন দফা দাবি জানিয়েছেন সাধারণ শিক্ষার্থীরা। রোববার (১৩ নভেম্বর) দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে সাধারণ শিক্ষার্থীদের ব্যানারে আয়োজিত এক মানববন্ধন কর্মসূচি থেকে এ দাবি জানানো হয়।

পোষ্য কোটা বাতিল করা না হলে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসন ভবন অবরোধের হুঁশিয়ারি দেন শিক্ষার্থীরা। মানববন্ধন শেষে তারা একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করে ক্যাম্পাসের গুরুত্বপূর্ণ বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করেন।

সাধারণ শিক্ষার্থীদের দাবি- ফেল করার পরও যেসব শিক্ষার্থীদের ভর্তি করা হয়েছে তাদের ভর্তি বাতিল; পোষ্য কোঠা বাতিল; জালিয়াতির মাধ্যমে যারা ভর্তি হয়েছে তাদের ভর্তি বাতিল ও জালিয়াতির সাথে যারা জড়িত তদন্তের মাধ্যমে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া।

রাকসু আন্দোলন মঞ্চের আহ্বায়ক আবদুল মজিদ অন্তর বলেন, ফেল করেও বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির এই অনিয়ম কোনোভাবেই সমর্থন যোগ্য না। যারা মিনিমাম ৪০ পেয়েও পাশ করতে পারে না, এমন অযোগ্যদের ভর্তির সুযোগ দিয়েছে প্রশাসন। অযোগ্য শিক্ষার্থীরা ভর্তি হয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ে মেধাবীদের উচ্চশিক্ষার পথে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করছে। প্রশাসন যদি এই পৈত্রিক কোটা বন্ধ না করে তাহলে আমরা বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ভবন অবরুদ্ধ করতে বাধ্য হবো।

নাগরিক ছাত্র ঐক্যের সভাপতি মেহেদি হাসান মুন্না বলেন, রাবির সাবেক ভিসি ৪০ জন ফেল করা শিক্ষার্থীকে ভর্তি করেছিল। বর্তমান ভিসি সেটাকে বৃদ্ধি করছেন। বিশ্ববিদ্যালয়ে ভিসি আসে ভিসি যায় আর তাদের অপকর্মগুলো বৃদ্ধি পায়। তারা বিশ্ববিদ্যালয়কে স্বৈরতান্ত্রিক কাঠামোতে রূপান্তর করে ফেলেছে। এখানে সাধারণ শিক্ষার্থীদের কোনো অধিকার নেই। আমরা এই অযৌক্তিক সিদ্ধান্তের তীব্র নিন্দা জানাই। অবিলম্বে ফেল করা শিক্ষার্থীদের ভর্তি বাতিল করতে হবে।

মানববন্ধনে দর্শন বিভাগের শিক্ষার্থী আশিকুল্লাহ মুহিবসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের অর্ধশতাধিক শিক্ষার্থী মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন।

Print Friendly, PDF & Email

সর্বশেষ - ক্যাম্পাস