রাবি: ভর্তিচ্ছু ছাত্রীদের হলে থাকতে হলে সঙ্গে আনতে হবে নিজস্ব বিছানা-বালিশ

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক, রাবি
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০২:৪২ PM, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২১

আগামী ৪-৬ অক্টোবর অনুষ্ঠিতব্য রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০২০-২০২১ শিক্ষাবর্ষে ১ম বর্ষ স্নাতক/স্নাতক (সম্মান) শ্রেণির ভর্তি পরীক্ষায় আবাসন সংকট নিরসনে ভর্তিচ্ছু ছাত্রীদের আবাসিক হলে থাকার ব্যবস্থা করছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। তবে হলে থাকতে হলে
ঘুমানোর জন্য নিজস্ব চাদর, বালিশ সঙ্গে নিয়ে আসা সেইসাথে ছাত্রীর সঙ্গে কোনো অভিভাবক না থাকাসহ বেশ কিছু নির্দেশনা মানার নির্দেশনা দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। আজ বৃহস্পতিবার (৩০ সেপ্টেম্বর)বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ দপ্তরের প্রশাসক ড. মো. আজিজুর রহমান সাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে আগামী ৪, ৫ এবং ৬ অক্টোবর অনুষ্ঠেয় ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারী শুধুমাত্র ছাত্রীদের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী হলসমূহের কমন স্পেস যেমন- ওয়েটিং রুম, হল রুম, নামাজ ঘর, টিভি রুম ইত্যাদি জায়গায় থাকার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

হলে অবস্থান করতে আগ্রহী ভর্তিচ্ছু ছাত্রীদের নিচের নির্দেশনাসমূহ অবশ্যই পালনীয়:

১। অবস্থানের জন্য অবশ্যই হলের নিম্নোক্ত মোবাইল/টেলিফোন নম্বরসমূহে সকাল ১০টা থেকে সন্ধ্যা ৭টার মধ্যে ফোন করে বুকিং দিতে হবে- মন্নুজান হল (০১৭২৫-৯০৭৩৪৩, ০১৭৫২-১২৭১২৮), রোকেয়া হল (০১৭১৬-১০৫৫০৩, ০১৭১২-১৪৪২৬৬), তাপসী রাবেয়া হল (০১৭৯৮-৭৮৬৬৬৬, শুধুমাত্র ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী ছাত্রীদের জন্য), বেগম খালেদা জিয়া হল (০১৭৩৮-৫৫৩৬৭৯, ০৭২১-৭১১০২৩), রহমতুন্নেসা হল (০১৭১০-৪৮৬৭৫৪, ০১৭৭৭-৬০৭৪২৫, ০১৭৩৪-১০৩৯৭৩), বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা হল (০১৭৩৮-৫৫৭৮৩৪, ০১৭৩৫-১৭০৫৫৫, ০১৭১২-৬৬০৬৩১, ০১৭১৮-৯১৭৫৭৬, ০৭২১-৭১১২০৬)।

২। অবস্থানের জন্য হলে প্রবেশের সময় হল গেটে ভর্তিচ্ছু ছাত্রীর ভর্তি পরীক্ষার যে কোনো একটি প্রবেশপত্র দেখাতে হবে। প্রবেশপত্রের একটি অতিরিক্ত কপি সঙ্গে রাখা একান্ত আবশ্যক।

৩। কমন স্পেসসমূহে কোনো বেড বা খাট নেই। তাই ঘুমানোর জন্য নিজস্ব চাদর, বালিশ ইত্যাদি সঙ্গে নিয়ে আসতে হবে।

৪। হলে অবস্থানে আগ্রহী ভর্তিচ্ছু ছাত্রীদের সকাল ১০টা থেকে সন্ধ্যা ৭টার মধ্যে হলে প্রবেশ করতে হবে। ছাত্রীর সঙ্গে কোনো অভিভাবক বা হলের আবাসিক কোন ছাত্রী হলে প্রবেশ এবং অবস্থান করতে পারবেন না।

৫। কমন স্পেসসসূহে এক সঙ্গে প্রায় ৩০০-এর অধিক ছাত্রীকে অবস্থান করতে হতে পারে। তাই নিজস্ব গুরুত্বপূর্ণ জিনিসপত্র যেমন- মোবাইল ফোন, টাকা-পয়সা, প্রয়োজনীয় কাগজপত্র নিজ দায়িত্বে সংরক্ষণ করতে হবে।

হলে নিরাপত্তার জন্য সার্বক্ষণিক মহিলা পুলিশ মোতায়েন থাকবে। তথাপি নিরাপত্তাজনিত কোনো পরিস্থিতির উদ্ভব হলে নিম্নোক্ত নম্বরসমূহে যোগাযোগ করার পরামর্শ দেয়া হলো:
১। রাবি প্রক্টর (০১৭১১-৫৭৪৮৬৩);
২। রাবি ছাত্র উপদেষ্টা (০১৭৭৩-৬৮৬৩৬৫);
৩। ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা, মতিহার থানা (০১৩২০-০৬১৬২৩)।

উল্লেখ্য,উল্লেখ্য, এ বছর ভর্তি পরীক্ষায় মোট ৪ হাজার ১৯১টি আসনে তিনটি ইউনিটে পরীক্ষা হবে। ‘এ’ (কলা, আইন, সামাজিক বিজ্ঞান ও চারুকলা অনুষদ এবং শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউট) ইউনিটে আসন ২ হাজার ১৯টি, ‘বি’ (ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদ ও ব্যবসায় প্রশাসন ইনস্টিটিউট) ইউনিটে ৫৬০টি এবং ‘সি’ (কৃষি ও বিজ্ঞান অনুষদ) ইউনিটে ১ হাজার ৬১২ আসন রয়েছে।
এ শিক্ষাবর্ষে বাছাই করে চূড়ান্ত পরীক্ষায় প্রতি ইউনিটে ৪৫ হাজার করে তিনটি ইউনিটে মোট ১ লাখ ৩৫ হাজার শিক্ষার্থী পরীক্ষা দেওয়ার কথা থাকলেও শেষ পর্যন্ত ‘এ’ ইউনিটে ৪৩ হাজার ৫৫৮, ‘বি’ ইউনিটে ৩৯ হাজার ৮৯৫ এবং ‘সি’ ইউনিটে ৪৪ হাজার ১৯৪টি চূড়ান্ত আবেদন জমা পড়েছে। এতে সব মিলিয়ে ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নেওয়ার ক্ষেত্রে ৭ হাজার ৩৫৩ আসন ফাঁকাই থাকছে।

আপনার মতামত লিখুন :