রামেক থেকে চুরি হওয়ার ২৭ ঘণ্টা পর নবজাতককে উদ্ধার


  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৯:৩২ AM, ২৪ জানুয়ারী ২০২১

রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতাল থেকে চুরি হওয়ার ২৭ ঘণ্টা পর নবজাতককে উদ্ধার করেছে পুলিশ। শনিবার (২৩ জানুয়ারি) দুপুর ১টার দিকে নগরীর মোন্নাফের মোড় পল্টুর বস্তি থেকে শিশুটিকে উদ্ধার করা হয়। এ সময় চুরি করে নিয়ে যাওয়া নারী ও তার স্বামীকে আটক করা হয়।

রাজশাহী মহানগর পুলিশের (আরএমপি) গোয়েন্দা শাখার একটি দল অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করে। আরএমপির মুখপাত্র গোলাম রুহুল কুদ্দুস এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, ‘বাচ্চাটিতে উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় দুজনকে আটক করা হয়েছে বলে শুনলাম। এখনো বিস্তারিত জানি না। এ ব্যাপারে বিস্তারিত একটু পরে জানানো হবে।’

এর আগে শুক্রবার (২২ জানুয়ারি) সকাল সাড়ে ৯টার দিকে রামেক হাসপাতালের ২৩ নম্বর ওয়ার্ডে রবিদাস সম্প্রদায়ের কমলী নামের এক নারীর বাচ্চা চুরি হয়।

নগরীর আইডি বাগানপাড়া এলাকার বাসিন্দা কমলী রবিদাস শিল্পী সিজারিয়ান অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে এই কন্যাশিশুর জন্ম দেন। এটিই তার প্রথম সন্তান। জন্ম নেয়ার তিন দিন পর বাচ্চাটি চুরি হয়। এর পরদিন উদ্ধার হলো।

কমলীর স্বামীর নাম মাসুম রবিদাস। রামেক হাসপাতালের জরুরি বিভাগের সামনেই মাসুম জুতা সেলাইয়ের কাজ করেন। কমলীর বাবা রামকৃষ্ণ রবিদাসও একই কাজ করেন। তিনি পাবনার ঈশ্বরদীতে থাকেন।

ঘটনার বিবরণে জানা গেছে, প্রসববেদনা নিয়ে বুধবার (২০ জানুয়ারি) দুপুরে কমলী রবিদাস শিল্পী রামেক হাসপাতালে ভর্তি হন। রাতে কন্যা সন্তানের জন্ম দেন তিনি। অচেনা এক নারী বৃহস্পতিবার (২১ জানুয়ারি) তার কাছে গিয়ে শিশুটিকে আদর করেন। শুক্রবার (২২ জানুয়ারি) সকালে তিনি আবার আসেন। সকালে ঘুম থেকে উঠে নাস্তা খেয়ে আবার বাচ্চাকে বুকে নিয়ে ঘুমিয়ে যান কমলী। এই ফাঁকে ওই নারী তার সন্তানকে নিয়ে পালিয়ে যান। বাচ্চা না পেয়ে তিনি পাশেই ঘুমিয়ে থাকা তার মাসিকে ডাকেন। এসময় মাসি ওয়ার্ডের বাইরে গিয়ে আর তাকে পাননি বলে জানান।

এই ঘটনায় রামেক কর্তৃপক্ষ পাঁচ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটিও গঠন করেছিল।

আপনার মতামত লিখুন :