স্থগিত পরীক্ষা গ্রহণে চিঠি: এখনো সিদ্ধান্ত জানায়নি শিক্ষা মন্ত্রণালয়

উমর ফারুক
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০২:০২ PM, ১৪ মার্চ ২০২১

গত ৩মার্চ শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের তোপে স্থগিত হওয়া পরীক্ষা সমূহ পুনরায় চালু করতে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) প্রশাসন থেকে শিক্ষা মন্ত্রণালয় বরাবর চিঠি পাঠানো হয়।
তবে পরীক্ষা গ্রহণের বিষয়ে অনুমতি চেয়ে পাঠানো চিঠির কোন প্রক্রিয়া বা অগ্রগতি নেই বলেও জানিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের তথ্য ও জনসংযোগ কর্মকর্তা মোহাম্মদ আবুল খায়ের।

ঠিক এমন পরিস্থিতিতে অনিশ্চিত সময় পার করছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।
বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের শিক্ষার্থী মোশাররফ হোসেন জিসান বলেন, পরীক্ষা স্থগিত হওয়ায় আমরা চাকরীর বাজারে পিছিয়ে পড়ছি। এই ক্ষতি পুষে নেয়া আমাদের জন্য কঠিন হয়ে পড়বে।
আক্ষেপ প্রকাশ করে একই বিভাগের শিক্ষার্থী ফারহানা জিলিক বলেন, আমরা একটি অনিশ্চিত সময় পার করছি। সব কিছু নিজেদের পরিকল্পনা মত হচ্ছে না। পরীক্ষা টা শেষ হলেই বেঁচে যেতাম।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক অর্থনীতি বিভাগের এক পরীক্ষার্থী বলেন, এই সময়ের মধ্যে ৪১ তম বিসিএস হতে পারলে বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা হতে সমস্যা কোথায়?
এদিকে এমন পরিস্থিতিতে হতাশা কাজ করছে শিক্ষার্থীদের মাঝে।
বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ও ছাত্র উপদেষ্টা (অতিরিক্ত দায়িত্বপ্রাপ্ত) প্রফেসর ড. লুৎফর রহমান বলেন, আমরা শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা নেয়ার ব্যাপারে বিশ্ববিদ্যালয় সদা আন্তরিক। আমরা শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অনুমতির অপেক্ষায় আছি। তবে এখন পর্যন্ত শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে কোন কিছু জানানো হয় নি।
চিঠির অগ্রগতির বিষয়ে জানতে চাইলে, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের তথ্য ও জনসংযোগ কর্মকর্তা মোহাম্মদ আবুল খায়ের বলেন, এখন পর্যন্ত চিঠিটির ব্যাপারে কোন প্রক্রিয়া শুরু হয় নি এবং কোন অগ্রগতি ও নেই।
এরপূর্বে, গত ২২ মার্চ শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নির্দেশে চলমান সকল পরীক্ষা স্থগিত করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। এর পর থেকেই ধাপে ধাপে ক্যাম্পাস- হল ও পরীক্ষা গ্রহণের দাবিতে আন্দোলনে যায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা ২৪ ঘন্টা আল্টিমেটাম দিলেও প্রশাসনের নানা আশ্বাসে আবারো স্থগিত হয় আন্দোলন। সর্বশেষ গত ২৮ ফেব্রুয়ারী স্থগিত পরীক্ষা চালু করার দাবি জানিয়ে মানববন্ধন ও অবস্থান কর্মসূচী পালন কালে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ও ছাত্র উপদেষ্টা (অতিরিক্ত দায়িত্বপ্রাপ্ত) প্রফেসর লুৎফর রহমান শিক্ষার্থীদের আশ্বস্ত করে বলেন, আগামী সাত দিনের মাঝে পরীক্ষা গ্রহণের ব্যাপারে একটা সিদ্ধান্ত আসবে। আর যদি কোন সিদ্ধান্ত না আসে তবে আমি নিজেই তোমাদের সাথে কর্মসূচীতে অংশ নিবো। এর পর ৩মার্চ পরীক্ষা গ্রহণের অনুমতি চেয়ে শিক্ষা মন্ত্রী বরাবর চিঠি দেন রাবি প্রক্টর।
প্রসঙ্গত,সারা দেশের করোনা পরিস্থির কথা বিবেচনা করে সরকার আগামী ২৪মে পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে চলমান ও আসন্ন সকল প্রকার পরীক্ষা স্থগিত করেছে। পরবর্তী নির্দেশনা না দেওয়া পর্যন্ত রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতক ও স্নাতকোত্তর চলমান ও আসন্ন সকল প্রকার পরীক্ষা স্থগিত করার নির্দেশ দিয়েছেন উপাচার্য প্রফেসর এম আবদুস সোবহান।

আপনার মতামত লিখুন :